আজকেরডিল.কম : বাংলাদেশের সর্বাধিক জনপ্রিয় অনলাইন শপিং মল। - Largest online shopping website in Bangladesh
দাম
  • ৳ ২৬৫০ - ২৬৫০
  • ৳ ২৬৫০ - ২৬৫০
  • ৳ ২৬৫০ - ২৬৫০
  • ৳ ২৬৫০ - ২৬৫০
  • ৳ ২৬৫০ - ২৬৫০
 
আপনার অর্ডার সম্পর্কিত তথ্য
X
loading..

পন্যের বিবরণ

পরিমাণ

দাম

মোট

1
আরও এরকম পন্য দেখুন

বাংলাদেশে অনলাইনে TVS প্রোডাক্ট কিনুন সাশ্রয়ী মূল্যে 

ভূমিকা

র‍্যাংগস গ্রুপ অফ কোম্পানিজ (আরজিসি) বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় নামী সংস্থাগুলির মধ্যে একটি। এই গ্রুপটি সর্বদা দেশের অভ্যন্তরে ইলেকট্রনিক্স এবং বৈদ্যুতিক পণ্যগুলির ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। এই গ্রুপটি সমস্ত ধরণের ইলেকট্রনিক্স এবং বৈদ্যুতিক পণ্য অ্যাসেম্বলিং, উৎপাদন , আমদানি, রফতানি, মেরামত, এক্সচেঞ্জ, লেনদেন ও বিপণনে সমান ভাবে পারদর্শীতার পরিচয় দেয় । এই গ্রুপটি তার সমস্ত বিদেশী কোম্পানীর সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক বজায় রেখেছে, যার ফলে বাংলাদেশের গ্রাহকদের জন্য মানসম্পন্ন পণ্য এবং দক্ষ সেবার গ্যারান্টি রয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে সুবারু, ইএনআই, ফুজি ইলেক্ট্রনিক, হাইসেন্স, মালিন্দো, এবং ডাক এয়ার।  টিভিএস আমাদের দেশের সর্বাধিক চালিত যানবাহন সংস্থাগুলির মধ্যে একটি। আজ টিভিএস অটোমোবাইল সেক্টরের বাজারের জন্য একটি আকর্ষণীয় প্রতিশ্রুতিবদ্ধতা অর্জন করেছে, এবং দেশের জিডিপিতেও। টিভিএস তাদের আইটেমগুলি দেশের বাইরে প্রেরণ করে। তাই আজ টিভিএস আমাদের দেশের জিডিপি উন্নয়নে একটি বড় ভূমিকা পালন করছে।

টিভিএস মোটরসাইকেল

টিভিএস অটো ইন্ডিয়া মোটরসাইকেল উৎপাদন  বিশ্বে নতুন ট্রেন্ড। বিশেষত স্বল্প দামের স্ট্যান্ডার্ড মোটরসাইকেলের বিভাগে তারা অত্যন্ত ভাল করছে। এই সময় তাদের ফুয়েল এফিশিয়েন্ট মোটরসাইকেলের মডেলগুলির বিস্তার প্রয়োজন, যা বাংলাদেশ, ভারত এবং নেপালের মতো দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশগুলিতে অত্যন্ত জনপ্রিয়। মূলত টিভিএস অটো ইন্ডিয়া ও এই অঞ্চলটিকে টার্গেট করেছে এবং তারা এই পরিকল্পনার সময় সফল হয়েছে । বর্তমান সময়ে টিভিএস অটো বাংলাদেশ বাংলাদেশের সবচেয়ে প্রতিশ্রুতিশীল মোটর বাইক প্রস্তুতকারক ভারতীয় এবং বাংলাদেশী বাজার হিসাবেও। টিভিএস বাইকগুলি তুলনামূলকভাবে কম দামের, অন্যদিকে জ্বালানী সাশ্রয়ী। এছাড়াও বাইকগুলোতে ফ্যাশনেবল সমস্ত সুবিধা রয়েছে। টিভিএস বাংলাদেশের বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় বাইক উপহার দিয়েছে, তার মধ্যে একটি টিভিএস আরটিআর 160, 150, এবং এটি একটি কিশোরের স্বপ্ন।  বিপরীতে, টিভিএস মেট্রো বা টিভিএস মেট্রো প্লাস বাংলাদেশের জ্বালানী সাশ্রয়ী বাইকগুলির মধ্যে একটি। স্বল্প বাজেটের ক্রেতাদের কথা মাথায় রেখে তাদের টিভিএস এক্সএল 100 এর মতো কম দামের বাইক তৈরি করেছে। সামগ্রিক পারফরম্যান্স বিবেচনা করে বাংলাদেশে টিভিএসের ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল। এই স্থানীয় বাজারের জন্য টিভিএস মোটরস তাদের গাড়িগুলি বাংলাদেশে অ্যাসেম্বল করতে চলেছে এবং এর স্থানীয় অংশীদার হতে যাচ্ছে অ্যাটলাস বাংলাদেশ লিমিটেড

টি ভি এস বাইকের গুণমান

টিভিএস অটো একটি ভারতীয় গাড়ি প্রস্তুতকারক কোম্পানি যার সদর দফতর ভারতের চেন্নাইতে অবস্থিত। এটি ভারতের তৃতীয় বৃহত্তম মোটরসাইকেল সংস্থা। কর্পোরেশনটির বার্ষিক বিক্রয় তিন মিলিয়ন ইউনিট এবং বার্ষিক ধারণ ক্ষমতা ৪ মিলিয়নেরও বেশি যানবাহন। টিভিএস মোটর সংস্থাটি বাংলাদেশসহ ৬০০ টিরও বেশি দেশে রফতানি সহ ভারতের দ্বিতীয় বৃহত্তম রফতানিকারক দেশ। টিভিএস মোটর প্রাথমিক ভারতীয় সংস্থা ছিল যে ১০০ সিসির মোটরসাইকেলে একটি কনভার্টার স্থাপন করেছিল এবং সেজন্য দেশীয়ভাবে প্রথম চারটি স্ট্রোক ১৫০ সিসি মোটরসাইকেল উৎপাদন  করে। টিভিএস এবং সুজুকি ১৯ বছরের দীর্ঘ সম্পর্কের পাশাপাশি প্রযুক্তি হস্তান্তরকে লক্ষ্য করে তৈরি করেছিলেন, বিশেষ করে ভারতের বাজারের জন্য দ্বি-চাকার ডিজাইনের নকশা ও উৎপাদনে  সক্ষম হয়েছিল। অ্যাপাচি আরটি আর ভি 4। আরটি আর ভি 4 মডেলটি বাংলাদেশের শীর্ষ স্তরের স্পোর্টস বাইক বিভাগের মধ্যে টিভিএস আধিপত্যের টার্নিং পয়েন্ট। ব্যবসার দৃষ্টিকোণ থেকে টিভিএস অটো ইন্ডিয়া বাংলাদেশের অটোমোবাইল শিল্পের একটি মাইলফলক। টিভিএস অটো ইন্ডিয়া এবং রেইন মোটরস বাংলাদেশ লিমিটেড বাংলাদেশের মোটরগাড়ি খাতের মধ্যে  প্রাইমারী ভেঞ্চার কোম্পানী তৈরি করেছে যা টিভিএস অটো বাংলাদেশ নামে পরিচিত। প্রাথমিকভাবে টিভিএস অটো বাংলাদেশ বাংলাদেশে মোটরসাইকেল আমদানি করতে সিবিইউ (কমপ্লিট বিল্ট ইউনিট) তারপর সিকেডি( কমপ্লিট নক ডাউন) অনুসরণ করেছে।

টিভিএস বাইকের সুবিধা এবং ব্যবহার

উল্লেখযোগ্য বিষয় হল টিভিএস ক্রুজারের পার্টস বাজারে সহজলভ্য। বাংলাদেশে এই ধরনের ক্রেতার সংখ্যা বেশি যারা মোটরগাড়ির জন্য ১ লক্ষ টাকা বা তার বেশি ব্যয় করতে পারেন না। স্প্রিন্টার অটোগুলি সহজভাবে এখনই পাওয়া যায়, তারা মানসম্পন্ন শ্রেণীর ব্যক্তিদের জন্য সর্বোচ্চ মানের বাইক তৈরি করে থাকে । এই লাইনের সাথে তারা ১৬০ সিসি, মোটর বাইকের বাজার পেয়েছে। এই সংস্থার স্বীকৃতির আরেকটি ব্যাখ্যা হলো টিভিএসের মোটর বাইকের সিংহভাগই স্ট্যান্ডার্ড বাইক। এটি এই ব্র্যান্ডটি সাধারণ শ্রেণী বা মধ্যবিত্তদের মধ্যে জনপ্রিয়। ক্লায়েন্টরা এই বাইকের দাম ও গুণগত মান নিয়ে গর্বিত। যার মধ্যে প্লাস্টিকের উপকরণ, মোটরবাইকের আসন, ব্রেক লিঙ্কগুলি,  ব্যাটারি টায়ার, টিউব সহ অতিরিক্ত যন্ত্রাংশ গুলো ভাল মানের হয়ে থাকে । ফগ লাইট, সাইড স্প্রেড, পয়েন্টার লাইট অ্যাডিশনাল পার্টসগুলির রানডাউনের জন্য আলাদাভাবে মনে  রাখবে। এই অংশগুলি টিভিএসের বিভিন্ন মডেলের মধ্যে ব্যবহার করা হয়। যেহেতু এই সংগঠনটির আমাদের দেশের মধ্যে একটি দুর্দান্ত সুখ্যাতি রয়েছে। একই রকম কয়েকটি টিভিএস মোটর বাইক টিভিএস অ্যাপাচি আরটিআর 160 4 ভি, টিভিএস ফনিক্স 125, টিভিএস মেট্রো প্লাস, টিভিএস মেট্রো প্লাস ডুয়াল টোন, টিভিএস মেট্রো, স্কুটি জেস্ট 110, টিভিএস ভোগো, টিভিএস জুপিটার, টিভিএস এক্সএল 100 ইত্যাদি।  

আজকেরডিলে দাম

দাম সব পণ্যের মূল বিষয় কারণ এটি নিয়ে ক্রেতা উদ্বিগ্ন থাকে। সুতরাং আজকারডিল ডট কম আপনাকে সুলভ মূল্যে সব পণ্যের দামের অফার দিয়েছে। আমাদের কাছে সমস্ত ধরণের ভোক্তাদের একটি বিশাল সংগ্রহ রয়েছে। সুতরাং প্রতিটি গ্রাহক আজকেরডিল ডটকম থেকে একটি টিভিএস বাইক কিনতে পারবেন তুলনামূলক কম মূল্যে। আমাদের গ্রাহক পর্যালোচনার সাথে সামঞ্জস্য রেখে আপনি আমাদের স্বল্প দামের কারণে কীভাবে বাজারের সেরা হয়ে উঠছি  তার একটি স্বচ্ছ ধারণা পাবেন। 

উপসংহার

অটোমোবাইলস সেক্টরে, টিভিএস অটো বাংলাদেশ লিমিটেড বাংলাদেশের প্রথম উদ্যোগী সংস্থা, যা ২০০৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। রেইন মোটরস বাংলাদেশ লিমিটেড এবং ভারতের টিভিএস অ্যান্ড সন্স বাংলাদেশে মোটরসাইকেলের উৎপাদন  ও এর সাথে সম্পর্কিত কাজের জন্য একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। রেইন মোটরস বাংলাদেশ লিমিটেড জনপ্রিয় স্থানীয় গ্রুপ সনি-র‍্যাংগসের সহকারী সংস্থা । আজকেরডিল গ্রাহকের আনুগত্যে বিশ্বাস করে এবং বাংলাদেশের সহজ গ্রাহক পরিষেবা সরবরাহ করে। আপনি যদি অনলাইন শপিংয়ের পক্ষে থাকেন তবে স্পষ্টতই আপনি ajkerdeal.com বাছাই করতে পারেন ।সুতরাং সিদ্ধান্তটি আপনার সম্পূর্ণ স্ট্যান্ডার্ড টিভিএস বাইকের পণ্য কেনার জন্য।

top