আজকেরডিল.কম : বাংলাদেশের সর্বাধিক জনপ্রিয় অনলাইন শপিং মল। - Largest online shopping website in Bangladesh
top
সাব ক্যাটাগরি
  • সুতি
  • হ্যান্ড পেইন্টেড শাড়ি
  • উৎসবের লাল শাড়ি
  • তাঁত
  • টাঙ্গাইল
  • কোটা
  • মসলিন
  • জামদানি
  • সিল্ক
  • শিফন/ জর্জেট
  • কাতান
  • ইন্ডিয়ান কালেকশন
  • ডিজাইনার শাড়ি
filter down arrow
দাম
  • ৳ ০ - ৮০০
  • ৳ ৮০১ - ১২৫০
  • ৳ ১২৫১ - ১৮০০
  • ৳ ১৮০১ - ২৫০০
  • ৳ ২৫০১ - ৩৫০০
  • ৳ ৩৫০১ - ৪৫০০
  • ৳ ৪৫০১ - ৬০০০
  • ৳ ৬০০১ - ১০০০০
  • ৳ ১০০০১ - ১৪৫০০
  • ৳ ১৪৫০১ - ২০০০০
  • ৳ ২০০০১ - ৩০০০০
filter down arrow

শিফন/ জর্জেট এ মোট ২,১১৯ টি পণ্য পাওয়া গেছে

আপনার অর্ডার সম্পর্কিত তথ্য
X

পন্যের বিবরণ

পরিমাণ

দাম

মোট

 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 

শিফন শাড়ি 508

৳ ২,৫৫০/-
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক
 
বিকাশ পেমেন্টে নূন্যতম ২০% ক্যাশব্যাক

বেস্ট কোয়ালিটি শিফন ও জর্জেট শাড়ি | আজকেরডিল

উৎসবে সাজে ভিন্নতা মানেই শাড়ি! যারা নিয়মিত অন্যান্য পোশাকে অভ্যস্থ তাদেরও সখ হয় উৎসবের দিনটিতে অন্তত্ব শাড়িতে নিজেকে সাজিয়ে নেবার। সে কারনেই ঈদ উপলক্ষে ফ্যাশনপ্রিয় নারীরা ভিড় জমাচ্ছেন শাড়ির বাজারে। তবে এবারের আবহাওয়া আর গরমের কথা মাথায় রেখে জর্জেট শাড়িকেই পছন্দের তালিকায় রেখেছেন ফ্যাশনপ্রিয় নারীরা। চলুন এবারের ঈদের জর্জেট শাড়ির লেটেস্ট কালেকশন গুলো দেখে নেই। 

জর্জেট শাড়ি

হালকা, আরামদায়ক ও সব বয়সের জন্য মানানসই—জর্জেট শাড়ির মজাটাই এখানে। এখনকার আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়েও যাবে চমৎকারভাবে। কড়া রোদে গরম লাগবে না। বৃষ্টির পানি লাগলেও শুকিয়ে যাবে তাড়াতাড়ি। এককথায় এ মৌসুমে শাড়ির ক্ষেত্রে জর্জেট শাড়ি হতে পারে অন্যতম পছন্দ।

কর্মক্ষেত্র, অনুষ্ঠান, প্রতিদিনকার চলাফেরায় জর্জেট শাড়ি অনেকটাই আরামদায়ক। সহজভাবে সামাল দেওয়া যায়। দিন থেকে রাত পর্যন্ত পরে ঘুরে বেড়ালেও ইস্তিরি নষ্ট হওয়ার ভয়টা থাকে না। বাজার ঘুরে জর্জেট শাড়ির সম্ভারে দেখা গেল বৈচিত্র্য। ক্রেতাদের মধ্যে প্রিন্ট করা শাড়ির চাহিদা বেশি বলে জানান বিক্রেতারা। ফুলেল নকশা, কলকা ও জ্যামিতিক নকশা বেশি দেখা গেল।

সত্তরের দশকে বাংলাদেশে জর্জেট শাড়ির জনপ্রিয়তা ছিল তুঙ্গে। তখনো প্রিন্ট শাড়ির প্রচলন বেশি ছিল। জর্জেট শাড়িগুলো মূলত বাইরের দেশ থেকে আমদানি করা হয়। জর্জেট শাড়ি পরলে আঁটসাঁট হয়ে থাকে, এ কারণে শারীরিক গঠন ভালো দেখায়। ভারী স্বাস্থ্য যাঁদের, তাঁরা এ কারণে জর্জেট শাড়িতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করতে পারেন।

হালকা গড়ন হলে দুই থেকে তিনরঙা শেডের শাড়ি মানাবে। তাঁরা একটু চড়া নকশাও বেছে নিতে পারবেন অনায়াসে। উচ্চতা একটু কম হলে একরঙা জর্জেট শাড়ি না পরাই ভাল। কারণ, শাড়িতে কোনো পাড় না থাকলে দেখতে আরও খাটো লাগে। তবে ঈদে সহ যেকোন উৎসব মাতাতে জর্জেট শাড়ির বিকল্পে নেই। 

দরদাম

জর্জেট শাড়ির বৈচিত্র্য খুঁজে পাওয়া গেল বিভিন্ন দোকানে। দরদামে তুখোড় হলেই অনেক কম দামে কিনতে পারবেন। বাজারে ৮০০ থেকে শুরু করে তিন হাজার ৫০০ টাকার ওপরেও শাড়ি আছে। জর্জেট শাড়ি যত হালকা হবে, এর দামটাও তত বেশি হবে।  যারা শাড়ি কিনে ঠকতে চান না তারা জর্জেট শাড়ি কেনার জন্য বেছে নিতে পারেন অনলানশপিংমল। বর্তমানে শাড়ি কেনার জন্য অনলাইন শপ বিশ্বস্ত নাম।

 

top