আজকেরডিল.কম : বাংলাদেশের সর্বাধিক জনপ্রিয় অনলাইন শপিং মল। - Largest online shopping website in Bangladesh
কালি ছুরি শুটকি বড় - ১ কেজি
সর্বমোট অর্ডার:
|
রেটিং:
|
রিভিউ:
|
|
১,৪০০
ডিল কোড: ৫৫৮৮৫২
পরিমান
কার্ট -এ যোগ করুন
()
আপনার অর্ডার সম্পর্কিত তথ্য
X
  আপনার শপিংকার্টে একটি নতুন পণ্য যোগ হয়েছে।

পন্যের বিবরণ

পরিমাণ

দাম

মোট

 
 
 
 
পন্যের বিবরণ
  • পরিমাণ: ১ কেজি

  • বাজারের শুটকির তুলনায় আমাদের শুটকির বৈশিষ্ট্য:-

  • আমাদের শুটকি প্রচলিত বাজারের শুটকির চেয়ে অপেক্ষাকৃত উজ্জ্বল ও বেশী চকচকে।

  • বাজারের শুটকিতে প্রকট শুটকির গন্ধ থাকে অনেকক্ষেত্রে সেটা পচা ও বিষের গন্ধ। আর আমাদের শুটকিতে ফ্যাটি এসিড ভাঙ্গালে গ্লিসারিন হয় এবং গ্লিসারিন স্বাদ ও গন্ধ মিষ্টি হওয়ায় পচা মাছের গন্ধ থাকে না।

  • বাজারের শুটকি অপেক্ষাকৃত কম শুকানো হয় বেশী লাভের আশায় যাতে করে শুটকির পরিমাণ ওজনে কম হয়। আর আমাদের শুটকি অপেক্ষাকৃত বেশী শুকানো হয় বলে ওজনে হালকা হয় বলে বাজারের শুটকির ৩ গুণ বেশী শুটকি ধরে।

  • বাজারের শুটকিতে সাধারণত প্রসেসিং এর সময় নাড়িভুঁড়ি ও অাঁশ ফেলা হয় না। কিন্তু আমরা শুটকির করার আগেই কাঁচা মাছের থেকে নাড়িভুঁড়ি ও অাঁশ ফেলে দেই।

  • বাজারের শুটকি প্রসেসিং এর সময় ভাল ভাবে ধোয়া হয় না। যার কারণে রান্নার সময় অনেক সময় গরম পানিতে ধোয়ার পরও ধূলাবালি থাকে বা শুটকির তৈল বা চর্বির উপর ধূলাবালি পড়লে সাবান ও ডিটারজেন্ট ছাড়া যায় না। কিন্তু আমাদের শুটকি তৈরী করি তাজা মাছ দিয়ে। যাতে করে শুটকির চামড়া মসৃণ থাকে। এবং গরম পানিতে ধোয়ার প্রয়োজন নেই কারণ আমরা প্রসেসিং এমন ভাবে করি যাতে ধূলাবালি ও বিষ থাকে না।

  • বাজারের শুটকিতে অধিক লাভের আশায় অনেক বেশী পরিমাণে লবন ব্যবহারের ফলে বেশী লবন ভাব থাকে। কিন্তু আমরা লবন ব্যবহার করি না। তাই ওজনে হালকা হয় স্বাদও ভাল থাকে।

  • বাজারের শুটকিতে মাছের উপর মাছি না বসার জন্য এবং পরবর্তীতে মাছে পোকার আক্রমণ ঠেকানোর জন্য কৃষিজ কীটনাশক (এন্ডো সালফার) ও ডিডিটি ব্যবহার করা হয়। যা মানুষের শরীরের জন্য মারাত্মক ক্ষতি বয়ে আনে। কিন্তু আমাদের সেলুলয়েড ও নেট দ্বারা আবৃত স্থানে শুকানো হয় বলে কোন প্রকার মাছি, পোকা ও ধূলাবালি মাছের উপর বসতে পারে না বলে বিষাক্ত কৃষিজ কীটনাশক ও ডিডিটি ব্যবহারের প্রয়োজন হয় না।

  • বাজারের শুটকির আর্দ্রতার পরিমাণ অনেক বেশী প্রায় 30-40%, কিন্তু আমাদের শুটকির আর্দ্রতা 10-15%

  • বাজারের শুটকিতে তৈল ও চর্বির পরিমাণ 10-15%, আমাদের শুটকিতে তৈল ও চর্বির পরিমাণ 5-8%

  • বি: দ্র: এই প্রোডাক্টের জন্য কার্ট অফার প্রযোজ্য নয় এবং সম্পূর্ণ মূল্য অগ্রীম পরিশোধ আবশ্যক

দ্রষ্টব্যঃ
১। প্রোডাক্টের অর্ডার স্টক থাকা সাপেক্ষে ডেলিভারি করা হবে। অনিবার্য কারনে পন্যের ডেলিভারিতে বিক্রেতা প্রতিশ্রুত ডেলিভারী সময়ের বেশী সময় লাগতে পারে।
২। অর্ডার কনফার্মেশনের পরেও অনিবার্য কারনবশত যেকোনো সময়ে আজকেরডিল আপনার অর্ডার বাতিল করার ক্ষমতা রাখে। এক্ষেত্রে অগ্রিম মুল্য প্রদান করা হলে রিফান্ডের প্রয়োজনীয় তথ্য (বিকাশ নং/রকেট নং/কার্ড নং ও অন্যান্য) দেওয়ার পরে সর্বোচ্চ ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে টাকা ফেরত দেয়া হবে।
৩। আমরা তৃতীয় পক্ষ কুরিয়ার সার্ভিস এর মাধম্যে প্রোডাক্ট আপনাদের কাছে ডেলিভারি করে থাকি। কুরিয়ার থেকে প্রোডাক্ট গ্রহণ করার সময় অনুগ্রহ করে প্রোডাক্ট পরখ করে গ্রহণ করবেন। পরবর্তীতে ভাঙা প্রোডাক্ট সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ গ্রহণযোগ্য হচ্ছে না। কুরিয়ার প্রোডাক্ট খুলে দেখতে না দিলে অনুগ্রহ করে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।
* কাস্টমার একাধিক মার্চেন্ট থেকে প্রোডাক্ট অর্ডার করলে অতিরিক্ত ২ দিন সময় লাগতে পারে।
পণ্য গ্রহনের পর যে কোন কারনে ক্রয়কৃত পণ্যের সম্পূর্ণ মূল্য আপনি ফেরত পেতে পারেন। সেক্ষেত্রে পণ্য গ্রহনের পর সর্বোচ্চ ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে আপনাকে complain@ajkerdeal.com এ ই মেইল করতে হবে অথবা আমাদের হটলাইন নাম্বার ০৯৬১২ ০০৭ ০০৭ এ কল করে ৩ চেপে আমাদের অবহিত করতে হবে। পণ্যের পুরো টাকা ফেরত নেবার ক্ষেত্রে পণ্যটি সম্পূর্ণ অক্ষত/ ত্রূটিমুক্ত অবস্থায় থাকতে হবে এবং আপনাকে উক্ত পণ্যটি আজকেরডিল এর অফিসে পাঠাতে হবে, উল্লেখ্য যে ফেরত পাঠানোর সকল পরিবহন খরচ আপনাকে বহন করতে হবে। কোন অতিরিক্ত চার্জ সংযুক্ত থাকলে আপনি পন্য গ্রহন না করে ফেরত দিতে পারবেন।
আজকেরডিল একটি মার্কেটপ্লেস। এখানে সব প্রোডাক্ট মার্চেন্ট / বিক্রেতা সরবরাহ করে এবং প্রোডাক্টের গুনগত মানের দায়দায়িত্ব তাদের। সেজন্য গ্রাহকদের মার্চেন্ট ও প্রোডাক্টের রেটিং এবং রিভিউ দেখে পণ্য কেনার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। মার্চেন্ট ও প্রোডাক্টের কোন প্রকার অভিযোগ থাকলে আজকেরডিলের সাথে তাৎক্ষনিকভাবে যোগাযোগ করুন।
০৯৬১২ ০০৭ ০০৭
complain@ajkerdeal.com
আজকেরডিল একটি মার্কেটপ্লেস। এখানে সব প্রোডাক্ট মার্চেন্ট / বিক্রেতা সরবরাহ করে এবং প্রোডাক্টের গুনগত মানের দায়দায়িত্ব তাদের। সেজন্য গ্রাহকদের মার্চেন্ট ও প্রোডাক্টের রেটিং এবং রিভিউ দেখে পণ্য কেনার পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। মার্চেন্ট ও প্রোডাক্টের কোন প্রকার অভিযোগ থাকলে আজকেরডিলের সাথে তাৎক্ষনিকভাবে যোগাযোগ করুন।”